যা আছে কাঞ্চন- নিপুণ পরিষদের ইশতেহারে

আগামী ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২৭তম দ্বিবার্ষিক নির্বাচন। এ উপলক্ষে বুধবার (২৬ জানুয়ারি) গণমাধ্যমের জন্য আয়োজন করা হয় ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ পরিষদের পরিচিত পর্ব। প্রার্থীদের পরিচয় পর্বের জন্য এ আয়োজন হলেও এতে খুঁজে পাওয়া গেল না বেশিরভাগ প্রার্থীদেরকেই।

বেলা ১টায় আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে পদপ্রার্থী ২১ জনের মধ্যে উপস্থিত হলেন শুধু সাংগঠনিক পদের পাঁচজন ও দুইজন কার্যকরী সদস্য।উপস্থিত ছিলেন সভাপতি পদপ্রার্থী ইলিয়াস কাঞ্চন, সহ-সভাপতি রিয়াজ, ডি এ তায়েব, কোষাধ্যক্ষ আজাদ, কার্যকরী পদের ফেরদৌস, কেয়া ও সীমান্ত।

বিষয়টি নিয়ে ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘আর একদিন বাদেই আমাদের নির্বাচন। তাই আমরা কাজ ভাগ করে করছি। অনেকেই উপস্থিত হননি।’এদিকে এই অভিনেতা সংবাদকর্মীদের সামনে তাদের ২২ দফা ইশতেহার তুলে ধরেন। এরমধ্যে জোর দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এফডিসিতে আনা এবং শিল্পীদের প্রোফাইল তৈরিসহ কয়েকটি দিক।

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘আমরা প্রথমেই চাই বঙ্গবন্ধুর তৈরি বিএফডিসিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আনতে। এছাড়াও শিল্পীদের জন্য তৈরি কল্যাণ ট্রাস্টের ব্যবহার, চলচ্চিত্রের সার্বিক অবস্থা তুলে ধরে এটি নির্মাণে ঋণের ব্যবস্থাও করতে চাই।’

২২টি পয়েন্টের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- বিএফডিসিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আনা, শিল্পীদের জন্য তৈরি কল্যাণ ট্রাস্টের ব্যবহার, চলচ্চিত্রের সার্বিক অবস্থা তুলে ধরে এটি নির্মাণে ঋণের ব্যবস্থা, বাতিল ও স্থগিত বা ভোটাধিকার বঞ্চিত শিল্পীদের তা ফিরিয়ে দেওয়া, শিল্পীদের মর্যাদা রক্ষায় কেউ একবার সদস্য হলে আজীবন সদস্য থাকবে, যেকোনও দুর্যোগ শিল্পীদের পাশে দাঁড়াবে সমিতি,

সহায়তা গ্রহণকারীদের ছবি ও ভিডিও প্রকাশ না করা, পার্শ্ববর্তী দেশের শিল্পী সংগঠনের মধ্যে চুক্তি করে দেশের শিল্পীদের কর্মসংস্থান তৈরি করা, ওয়েবসাইট উন্নয়ন, শিল্পীদের প্রোফাইল তৈরি করা, বিশেষ করে নৃত্য ও অ্যাকশন শিল্পীদের প্রোফাইল তৈরি করে বিশ্বের বিভিন্ন ইন্ডাস্ট্রিতে পাঠানো, সভাপতিকে পদাধিকার সেন্সর বোর্ড বা তথ্য-সম্প্রচার বা সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন জায়গায় অধিষ্ঠিত করা।

ইলিয়াস কাঞ্চন জানান, ‘মর্যাদায় ও পর্দায় আমাদের শিল্পী’ স্লোগানে তারা এবারের নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। তারা নির্বাচিত হলে শিল্পীদের মর্যাদা ও পর্দায় তাদের কাজের ব্যবস্থা করবেন।

Back to top button