হানিমুনে গিয়ে হামলায় আহত স্বামী, দুর্বৃত্তদের হাত ধরে পালাল নববধূ

কুয়াকাটা সমুদ্রসৈকতে নববধূকে নিয়ে হানিমুনে গিয়ে দুর্বৃত্তদের মারধরে আহত হয়েছেন মনিরুল ইসলাম নামে এক পর্যটক। পরে ওই দুর্বৃত্তদের হাত ধরে নববধূ পালিয়ে গেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১১টায় কুয়াকাটা জিরো পয়েন্ট ফ্রাই মার্কেটসংলগ্ন সৈকতে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ট্যুরিস্ট পুলিশ মনিরুল ইসলামকে তাদের হেফাজতে নিলেও উদ্ধার করতে পারেনি তার স্ত্রী নুরে জান্নাতকে।

মারধরের শিকার পর্যটক মনিরুল ইসলাম বরগুনা পৌর শহরের ৪নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আনোয়ার হোসেনের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন সিঙ্গাপুর প্রবাসী ছিলেন।মনিরুল ইসলাম বলেন, রাতে সৈকতের জিরো পয়েন্টে স্বামী-স্ত্রী দুজনে দাঁড়িয়েছিলাম। আকস্মিক আমাকে ৪-৫ জন লোক মারধর শুরু করে। আমি বাঁচার চেষ্টা করি এবং স্ত্রীকে আঁকড়ে ধরি। এ সময় আমাকে ছেড়ে আমার স্ত্রী হামলাকারীদের হাত ধরে চলে যায়।

সৈকতের আচার দোকানি প্রত্যক্ষদর্শী খায়রুল বলেন, স্বামী-স্ত্রী দুজনকে সৈকতে নামতে দেখেছি। এর কিছুক্ষণ পর তাকে (পর্যটক মনিরুল) রক্তাক্ত অবস্থায় ট্যুরিস্ট পুলিশ বক্সে নিয়ে আসে।নববধূ নুরে জান্নাতের বাবা হারুন অর-রশিদ মোবাইল ফোনে বলেন, আমরা ঘটনা শুনেছি। তবে আমার মেয়ে এখন কোথায় আছে এখনো জানতে পারিনি, বিষয়টি পারিবারিকভাবে আমরা দেখব।

ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোনের পরিদর্শক হাসনাইন পারভেজ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মারধরের শিকার পর্যটককে উদ্ধার করি, তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন ছিল। আহত পর্যটক মনিরুল ইসলামকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Back to top button