প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ: দিনাজপুর বোর্ডে এসএসসির ৪ বিষয়ে পরীক্ষা স্থগিত

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলায় চলতি এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ অভিযোগে চার বিষয়ের পরীক্ষা স্থগিত করেছে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড। কুড়িগ্রাম জেলা শিক্ষা অফিসার মো. শামসুল আলম বুধবার সকালে সমকালকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, চলতি এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার অভিযোগে গণিত, কৃষি, পদার্থ ও রসায়ন এই চারটি বিষয়ের পরীক্ষা গ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর কামরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়,

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২০২২ সালের চলমান এসএসসি পরীক্ষার গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, কৃষিবিজ্ঞান এবং রসায়ন বিষয়ে পরীক্ষা অনিবার্য কারণবশত স্থগিত করা হলো। পরীক্ষার তারিখ যথাসময়ে জানানো হবে। স্থগিত করা বিষয়গুলো ব্যতীত অন্য সব বিষয়ের পরীক্ষা রুটিনে উল্লেখিত সময়সূচি অনুযায়ী যথারীতি অনুষ্ঠিত হবে।

শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর কামরুল ইসলাম জানান, দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের আওতাধীন সব এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র সচিবদের চিঠি দিয়ে পরীক্ষা স্থগিতের বিষয়টি জানানো হয়েছে।

এদিকে চলমান এসএসসি পরীক্ষায় কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ উঠলে মঙ্গলবার রাত ৮টা থেকে ১২টা পর্যন্ত দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কামরুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম ও পুলিশ সুপার আল আসাদ মো. মাহফুজুল ইসলাম ভূরুঙ্গামারী থানা ও ইউএনও কার্যালয়ে চার ঘণ্টা বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে মামলা করা হয়। এই মামলায় একটি পরীক্ষার কেন্দ্র সচিবসহ তিন শিক্ষককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদেরকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে ভূরুঙ্গামারী থানায় মামলা করেন কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত ট্যাগ কর্মকর্তা উপজেলা মৎস্য অফিসার আদম মালিক চৌধুরী। প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে আটক শিক্ষকরা হলেন- উপজেলার নেহাল উদ্দিন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ওই পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব লুৎফর রহমান, একই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক যোবায়ের হোসেন ও রাসেল মিয়া।

Back to top button