৩ গুণ দামে পানি পান করতে হবে

শিক্ষানগরী রাজশাহীতে চলতি বছরের শুরুতে পানির দাম আগের দামের চেয়ে তিন গুণ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় রাজশাহী পানি সরবরাহ ও পয়োনিষ্কাশন কর্তৃপক্ষ (ওয়াসা)। সেই সিদ্ধান্ত আজ মঙ্গলবার থেকে কার্যকর হওয়ার কথা। মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্তে নগরবাসী বলছেন, ওয়াসার পানি সব সময় ঠিকমতো পাওয়া যায় না।

ফলে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর করোনা পরিস্থিতিতে পানির দাম না বাড়ানোর দাবি জানিয়েছিলেন নগরবাসী। এ নিয়ে প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটের পাশাপাশি পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বিষয়টি প্রচার করা হয়।

রাজশাহী ওয়াসার ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১ ফেব্রুয়ারি থেকে প্রতি ১ হাজার লিটার পানির মূল্য আবাসিকে ৬ দশমিক ৮১ এবং বাণিজ্যিকে ১৩ দশমিক ৬২ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে পাইপের ব্যাস ও ভবনের তলার ভিত্তিতেও নতুন মূল্য নির্ধারণের তালিকা প্রকাশ করা হয়।

রাজশাহী ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) জাকীর হোসেন বলেন, পানির দাম বাড়ানোর পরও এটি দেশের অনেক শহরের চেয়ে কম। উল্লেখ্য, সিটি করপোরেশনের পানি সরবরাহ শাখাকে আলাদা করে ২০১০ সালের ১ আগস্ট প্রতিষ্ঠা হয় রাজশাহী ওয়াসা। বর্তমানে ১০৩টি গভীর নলকূপের মাধ্যমে পানি উত্তোলন করে তা পাইপলাইনের মাধ্যমে সরবরাহ করা হচ্ছে।

নগরে পানির চাহিদা প্রতিদিন ১১ কোটি ৩২ লাখ লিটার। তবে ওয়াসা ৯ কোটি লিটার পানি সরবরাহ করতে পারে। ৭১২ কিলোমিটার পাইপলাইনের মাধ্যমে এ পানি নগরে সরবরাহ করা হয়। সবশেষ ২০১৪ সালে ওয়াসা এক দফা পানির দাম বাড়িয়েছিল।

Back to top button