মুসকানের জন্য বড় অঙ্কের পুরস্কার ঘোষণা

গেরুয়ায় একদল ছাত্র-ছাত্রীর ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান ও হেনস্তার মুখে প্রতিবাদ জানানো সাহসী সেই নারী মুসকানকে ৫ লাখ রুপি পুরস্কারের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।  মঙ্গলবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় ভারতের মুসলিমদের নেতৃস্থানীয় সংগঠন জমিয়ত উলামা-ই-হিন্দ এই পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছে।

টুইটে জমিয়ত উলামা-ই-হিন্দ বলেছে, নিজের সাংবিধানিক এবং ধর্মীয় অধিকারের জন্য তীব্র প্রতিবাদের মুখে মুসকান খান একাই দাঁড়িয়েছিলেন। তার এই সাহসিকতার জন্য ৫ লাখ রুপি পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছে সংগঠনটি।এদিকে, নারীরা কোন কাপড় পরবেন, সেটি তাদের ব্যক্তিগত বিষয় বলে কর্ণাটকের মুসলিম ছাত্রীদের কলেজে হিজাব পরার অনুমতির দাবিতে চালিয়ে আসা আন্দোলনের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন ভারতের প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেসের নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

এক টুইট বার্তায় তিনি বলেছেন, নারী কোন কাপড় পরবেন, সেটি ঠিক করার অধিকার নারীর এবং ভারতীয় সংবিধানেও তাদের সেই অধিকারের স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে।বুধবার সকালে টুইটারে দেওয়া ওই বার্তায় প্রিয়াঙ্কা গান্ধী লিখেছেন, ‘বিকিনি হোক কিংবা ঘোমটা, জিন্স বা হিজাব যেটাই হোক, তিনি কী পরতে চান তা সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার রয়েছে একজন নারীর। নারীর এই অধিকার ভারতীয় সংবিধানের মাধ্যমে নিশ্চিত করা হয়েছে। আর তাই নারীদের হয়রানি করা বন্ধ করুন।’

গত এক মাসের বেশি সময় ধরে কর্ণাটকের বিভিন্ন স্কুল কলেজে একদিকে হিজাব পরে ক্লাস করার অনুমতির দাবিতে আন্দোলন করছে মুসলিম ছাত্রীরা। অন্যদিকে হিন্দু শিক্ষার্থীরা গেরুয়া ওড়না পরে হিজাববিরোধী আন্দোলন শুরু করেছে।

Back to top button