অভাবের তাড়নায় যুবকের আত্মহত্যা

রাজধানীতে অভাবের কারণে সংসার চালাতে না পারায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে মো. ফাহিম (২৫) নামের এক যুবক। মুগদা থানার ওয়াসা গলিতে এ ঘটনা ঘটে। শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) রাতে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 বিষয়টি নিশ্চিত করে মুগদা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আকরাম বলেন, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে গিয়ে তার গলায় ফাঁস দেওয়া মরদেহ উদ্ধার করি। এরপর ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি ঢামেক মর্গে পাঠাই।

তিনি বলেন, ফাহিম কমলাপুর আইসিডিতে লেবার হিসেবে কাজ করত। তার আর্থিক অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। সে তার শ্বশুর বাড়িতে থাকত। রাতে এসে সবার অগোচরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে সে।

এসআই আকরাম বলেন, তার বাসায় একটি ড্রাম ও একটি বেড ছাড়া কিছুই নেই। অভাব-অনটনের কারণে সে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি। তারপরও মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ধারণে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

এ ঘটনায় নিহত ফাহিমের মা সাইয়েদা আক্তার বাদী হয়ে একটি অপমৃত্যুর মামলা (মামলা নং-৬) দায়ের করেছেন। ফাহিম নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার আজিজুল করিমের ছেলে।

Back to top button