চাকুরী ছেড়ে কৃষি প্রজেক্ট গড়ে সফল হলেন চুয়াডাঙ্গার শিক্ষিত তরুণ উদ্যেক্তা পলক।

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: চাকুরী করতেন দেশের নামকরা কোম্পানিতে পেতেন চড়া বেতনও। কিন্তু তিনি সপ্ন দেখতেন নিজ এলাকায় এসে বেকার তরুণদের নিয়ে ভালো কিছু করার তাইতো চাকুরী ছেড়ে ১০ বিঘার স্বপ্নের কৃষি প্রজেক্ট গড়ে তুলেছেন চুয়াডাঙ্গার শিক্ষিত তরুণ উদ্যেক্তা পলক। চাকুরী ছাড়ার কারণ হিসাবে তিনি আমাদের জানান, ছোটবেলা থেকেই তিনি স্বপ্ন দেখেন উদ্যোক্তা হওয়ার। তিনি বিবিএ, এমবিএ করার পর তার কাছে মনে হয়েছে কেন তিনি চাকুরী করবেন, বরংতিনি অন্যান্য মানুষের কর্মসংস্থাপনের ব্যবস্থা করবেন।

সেই চিন্তা থেকেই চাকুরী ছেড়ে ২০২০ সালে তিনি উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্প থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে চুয়াডাঙ্গার সাতগাড়ী এলাকায় গড়ে তোলেন তার স্বপ্নের কৃষি প্রজেক্ট। তিনি জানান ইউটিউব দেখে অনুপ্রািন্ত হয়ে এবং কৃষি অফিসের পরামর্শে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বড়ই/কুল, ড্রাগন ও বারোমাসি পেয়ারা চাষ করে মাত্র ১ বছরেই তিনি সফলতা অর্জন করেছেন।

বিভিন্ন এলকা থেকে প্রতিদিন মানুষ তার এই কৃষি প্রজেক্ট দেখতে আসছেন। সঠিক পরিকল্পনা ও তার সঠিক বাস্তবায়ন এবং আধুনিক কৃষি প্রযুক্তির সমন্বয়ে চমৎকার একটি কৃষি প্রজেক্ট গড়ে তুলে তিনি নিজে যেমন আর্থিক ভাবে লাভবান হচ্ছেন। তেমনি তার খামারে বিভিন্ন কৃষি শ্রমিকের কর্মস্থানের সুযোগ তৈরীতে তিনি অনবদ্য ভুমিকা পালন করছেন। তরুণ উদ্যেক্তাদের হাত ধরে বদলে যাবে বাংলার কৃষি।উদ্যোক্তা পলকের খামারে কাজ করছে প্রায় ৮ জন । চুয়াডাঙ্গা সহ সারাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মানুষ আসছে তার খামারে।

উদ্যোক্তা পলকের সফলতায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বাংলাদেশ উদ্যোক্তা ফোরাম চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার আহ্বায়ক তাহমিদ হাসান তমাল ও উদ্যোক্তা সৃষ্টি দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্পের চুয়াডাঙ্গা অফিসের পরিচালক ও বাংলাদেশ উদ্যোক্তা ফোরাম চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার উপদেষ্টা তানভির আহমেদ জুয়েল।

চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অফ কমার্স এর সভাপতি ইয়াকুব হোসেন মালিক বলেন তরুণ উদ্যোক্তা পলক চাকুরী ছেড়ে বেকারদের নিয়ে কৃষি প্রজেক্ট ও খামার প্রকল্প হাতে নিয়েছে তা চুয়াডাঙ্গায় ব্যাপক সাড়া ফেলেছে , তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্য চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অফ কমার্স কাজ করে যাচ্ছে। উদ্যোক্তাদের যে কোন প্রয়োজনে পাশে থাকতে চাই।

মোঃ আব্দুল্লাহ হক (চুয়াডাঙ্গা)

Back to top button