আমি বাংলাদেশি, পূর্বপুরুষ আমার দাদু বরিশালের: শ্রাবন্তী

আমি এ দেশের_ই মেয়ে…

‘আগেও বলেছি, এখনও বলছি, আমি বাংলা’দেশি। এ দেশের’ই মেয়ে আমি।’ বাংলাদেশের প্র’সঙ্গ তুলতেই বিরাম’হীন বলতে শুরু করেন শ্রাব’ন্তী, বলেন, ‘আমি এর আগে যখন প্রথ’ম বাংলাদেশে কাজ করি ২০১৬ সা’লে, তখন প্রথম বাংলা’দেশে আসি। যদিও ছোট’বেলা থেকেই বাংলাদেশে আসার জন্য মন ব্যাকুল হয়ে’ছিল।

আমার পূর্বপুরুষ বাংলাদেশি। আমার দাদু বরি’শালের। দাদুর মুখে অনেক গল্প শুনে’ছি বাংলাদেশের। আমরা গর্বের সঙ্গে নিজে’কে বাঙাল বলে পরিচয় দিই। আমার ছোট’বেলায় খুব ইচ্ছে ছিল এ দেশে আসার। আমার মন বল’তো একদিন না একদিন যা’বই। বলে না মন থেকে যদি কেউ কি’ছু চায় ভগ’বান সেটা পূরণ করে।

তাই আমি বাংলা’দেশে আসতে পেরেছি। সেই যে শুরু। তার’পর থেকে কিছুদিন পর পরই বাংলা’দেশে আসছি। আশা করি, এই ধারা অব্যাহত থাকবে আ’জীবন।’ বলিউডের কথা ভা’বি না… টলি’উড ও ঢালিউউ- দুই মাধ্য’মেই কাজ করছেন। বলিউ’ডের ছবিতে কাজ করার ইচ্ছেও আছে না’কি? উত্তরে শ্রা’বন্তী বলেন,

‘যদি মুম্বাইয়ে গিয়ে কাজে’র কথা বলেন, তাহলে বলব আমি এত’টাই কুঁড়ে যে এখন মুম্বাইয়ে গিয়ে নতুন করে ক্যারি’য়ার শুরু করার কথা ভাবতে পারব না। আগেও চে’ষ্টা করিনি। তাহলে ওখানে গিয়ে থাকতে হতো। স্ট্রাগল কর’তে হতো। আসলে টলি’উডে আমি এত স্বাচ্ছন্দ্য আর খু’শি যে, কোনো দিন মুম্বাই’য়ে যাওয়ার কথা ভাবিই’নি। এত ছোট থেকে এখানে কা’জ করছি, যে পরি’চালক-প্রযোজক সবাই ভালোবাসেন।’

Back to top button