ভোট দিয়ে যা বললেন শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের (নাসিক) নির্বাচনে ভোট দিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য শামীম ওসমান।ভোটের দিন রোববার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে পর্যন্ত তার দেখা না মিললেও বিকেল ৩টার দিকে নগরীর এনায়েতনগর কেন্দ্রে ভোট দেন তিনি। ভোট দেওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, খুব সুন্দর-শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন হচ্ছে।

তিনি বলেন, নির্বাচনে জয়-পরাজয় আছে। যেকোনো একজন জিতবেন। তবে মনে রাখতে হবে নারায়ণগঞ্জ আমাদের সবার।সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানিয়ে শামীম ওসমান বলেন, এই নির্বাচনের পরিবেশ শান্ত রাখার জন্য নারায়ণগঞ্জের এবঙ ঢাকা থেকে আসা সাংবাদিকদের অবদান আনেক। তাদের সাফল্য কামনা করেন তিনি।

শামীম বলেন, আমি নৌকার নির্বাচন করি। আমার হ্রদয়ে রক্তক্ষরণ আছে।আমার নেত্রী যদি নীলকণ্ঠি হতে পারেন, আমি কেন নীলকণ্ঠ হতে পারবো না।

স্থানীয় সূত্র বলছে, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের এবারের কোনো রকম কার্যক্রমে অংশগ্রহণ না করেও শুরু থেকেই আলোচনা ছিলেন শামীম ওসমান। বারবারই তার নামটি আলোচনায় চলে আসে। প্রধান দুই প্রতিন্দ্বন্দ্বী প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী ও অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকারকে ঘিরে বারবার শামীম ওসমানের প্রসঙ্গ ওঠে।

সেইসঙ্গে শামীম ওসমান কাকে সমর্থন দিচ্ছেন তা নিয়ে সর্বমহলেই আলোচনা ছিল তুঙ্গে। সবশেষ গত ১০ জানুয়ারি সংবাদ সম্মেলনে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন নিয়ে তার অবস্থান পরিষ্কার করেন। পাশাপাশি দলীয় নৌকা প্রতীকের পক্ষে মাঠে নামবেন বলে ঘোষণা দেন।

সেদিন সংবাদ সম্মেলনে শামীম ওসমান বলেছিলেন, ‘নৌকার জন্য আমি এখনো নামি নাই। কাজ করেছি। নৌকার বিপক্ষে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। তবে আজ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে নামলাম। আমি মনে করি জয় আমাদের হবে। এ জায়গাটা নৌকার। আমাদের জনগণের কাছে যেতে হবে।

শেখ হাসিনার নৌকাকে পাস করাতে হবে। পাস করাবোই। মনে একটা কষ্ট ছিল। আজ থেকে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে পুরোপুরি নামলাম। ১৬ তারিখ খেলা হবে। খেলা আমরাই জিতবো।’

Back to top button