কাফন পরে এতিম তিন বোনের অনশন

কাফনের কাপড় পরে অনশনে বসেছেন এতিম তিন বোন। চাচা ও এলাকার প্রভাবশালীদের হাত থেকে জমি ও বসতঘর ফিরিয়ে না দেয়া পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তারা।  বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বরগুনা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনেই অনশন শুরু করেন তারা।

অনশনরত তিন বোন বরগুনার বামনা উপজেলার গোলাঘাটা গ্রামের মৃত আব্দুর রশিদের মেয়ে মোসা. রুবি আক্তার (২৭), মোসা. জেসমিন আক্তার (১৮) ও মোসা. রোজিনা আক্তার (১৬)।বড় বোন রুবি আক্তার সাংবাদিকদের বলেন, ছোট বেলায় বাবা-মা মারা যাওয়ার পরে অভাবের তাড়নায় দুই বোনকে নিয়ে চট্টগ্রাম গিয়ে পোশাক শ্রমিকের কাজ করেন তিনি।

দুই বোনকে লেখাপড়া করিয়ে মানুষ করেছেন। করোনার কারণে চাকরি হারিয়ে বামনায় নিজ বাড়িতে এসে তারা দেখেন, তার বাবার বসতঘর ও ফসলি জমি দখল করে নিয়েছেন তার চাচারা। দখলে সহায়তা করে জমির ভাগ নিয়েছেন এলাকার প্রভাবশালীরা।

ছোট বোন রোজিনা আক্তার বলেন, তাদের বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছেন স্বজনরা। এখন মাথা গোঁজার মতো ঠাঁই নেই। তাই বাধ্য হয়ে রাস্তায় নেমেছেন।তিনি আরও বলেন, ‘চাচা মান্নান, চাচাতো ভাই শাহজাহান ও কিসলু বাড়ি-জমি ফিরিয়ে না দিলে আমরা অনশন থেকে উঠবো না। আমার চাচা বলছেন— আমরা চট্টগ্রাম থাকায় আমাদের জমি সরকার নিলামে তুলেছে। আমরা খোঁজ নিয়েছি, আমার বাবার জমি নিলাম হয়নি। চাচারা জোর করে দখল করেছেন, আর আমাদের মিথ্যা বলছেন।’

এ বিষয়ে বরগুনা জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘পুলিশ সুপারের সঙ্গে কথা বলেছি। বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হবে।’

Back to top button