এখন বললে হয়তো বিশ্বাস করবেন না, বললেন ডোমিঙ্গো

মাত্র ৪৫ রানে ৬ উইকেট পড়ার পর ১৭৪ রানের রেকর্ড জুটি গড়ে দলকে জিতিয়েছেন আফিফ ও মিরাজ। ম্যাচ শেষে অধিনায়ক তামিম ইকবাল সোজাসাপ্টাই বলেছেন, ৪৫ রানে ৬ উইকেট পড়ার পর আর ম্যাচ জিততে পারবো ভাবিনি আমি।  তবে অধিনায়ক না ভাবলেও, হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো ঠিকই জানতেন যে, বড় জুটি গড়বেন আফিফ ও মিরাজ। এরপরও কিছু বাকি থাকলে তা করে ফেলবেন তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম।

দ্বিতীয় ওয়ানডের অনুশীলনের ফাঁকে সংবাদ মাধ্যমে কথা বলেন ডোমিঙ্গো। প্রথম ম্যাচ সম্পর্কে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘এখন বললে হয়তো বিশ্বাস করবেন না, কিন্তু মিরাজ যখন ব্যাট করতে যায় তখন আমি শ্রিকে (শ্রিনিবাস চন্দ্রশেখরন, বাংলাদেশ দলের অ্যানালিস্ট) বলছিলাম যে, ওরা দুজন ১৫০ রানের জুটি গড়বে। এরপর তাসকিন-শরিফুলের সামনে ১৫ রান থাকবে।’

ডোমিঙ্গোর ভাষ্য, ‘যখন দেখলাম আমাদের লক্ষ্য ৬০ রানের নিচে নেমে এসেছে, তখনই ভাবলাম আমরা জিততে যাচ্ছি। কারণ মোমেন্টাম আমাদের সঙ্গে ছিল। একটা পর্যায়ে তাদের (আফগানিস্তান) বোলিং অপশনও কমে আসছিল। উইকেট সত্যিই ব্যাটিংয়ের জন্য ভালো ছিল।’

ম্যাচে বাংলাদেশের ইনিংসের ৩০ ওভার শেষে হুট করেই ফ্লাডলাইট বিভ্রাটের কারণে প্রায় ১৫ মিনিট বন্ধ ছিল খেলা। তখনও জয়ের জন্য ৮৬ রান প্রয়োজন ছিল বাংলাদেশের। সেই মুহূর্তে খানিক চিন্তায় পড়েছিলেন ডোমিঙ্গো। তবে আফিফ ও মিরাজ যেভাবে পরিপক্ক ব্যাটিং করেছে, তা সব চিন্তা দূর করেছে।

ডোমিঙ্গো বলেন, ‘সত্যি বলতে ফ্লাডলাইটের কারণে আসা বিরতিটি আমাকে নার্ভাস করে তুলেছিল। কারণ সেই বিরতির আগে ২-৩ ওভার ভালো যাচ্ছিল আমাদের। আবার খেলা শুরু হওয়ার আফিফও খানিক ছন্দ হারায়। তবে এরপর দারুণ পরিপক্কতা দেখিয়ে সেই ধাপটাও পার করেছে তারা।’

Back to top button