চলমান ‘শ্মশানে’ লাশ ‘ভ্যানিশ’ করছে রুশ বাহিনী

ট্রাক তো নয়, এ যেন একেকটি চলমান শ্মশান! বাইরে থেকে দেখতে সাধারণ পাঁচটা ট্রাকের মতো হলেও তার ভেতরেই লুকনো রয়েছে চুল্লি। ইউক্রেনে নিহত রুশ সেনাদের নাকি ঐ চুল্লিতে ঢুকিয়েই ‘ভ্যানিশ’ করছে রাশিয়ান বাহিনী।

 পশ্চিমাপন্থী গণমাধ্যমগুলোর দাবি অনুযায়ী, ট্যাংক, যুদ্ধযান বা ভারী অস্ত্র-গোলাবারুদ ছাড়াও লাশ পোরানোর এমন অসংখ্য ট্রাক নিয়েই ইউক্রেনে প্রবেশ করেছে রুশ বাহিনী।যুদ্ধবিশেষজ্ঞরা বলছেন, যুদ্ধে নিহত রুশ সেনাদের দেহ জ্বলন্ত চুল্লিতে ঢুকিয়ে যুদ্ধে হতাহতের প্রকৃত সংখ্যাতেও গরমিল করছে পুতিন সরকার। এছাড়াও তারা আরও দাবি করেছে, রুশ হামলায় নিহত ইউক্রেনের সাধারণ মানুষদের দেহও পোড়ানো হচ্ছে বিশেষ ঐ ট্রাকের ভেতর।

এর আগে ২০১৩ সালে প্রথম বার ইন্টারনেটে ঐ ‘চলমান শ্মশান’-এর ছবি পাওয়া গিয়েছিলো। গত চারদিন ধরে চল্মান রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ ঘিরে আবারও ইন্টারনেটে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে বিশেষ ঐ ট্রাকের ছবি।

রাশিয়া ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর করার পর বর্হিবিশ্বের পাশাপাশি রাশিয়ার অভ্যন্তরেও তুমুল সমালোচনা শুরু হয়েছে। ইউক্রেনে আগ্রাসন চালানোর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ শুরু করেছেন অনেক রাশিয়ান নাগরিকই। রুশ সেনাদের মায়েদের নিয়ে গঠিত একটি কমিটির দাবি, তাদের ছেলেদের ঠকিয়ে ইউক্রেনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

প্রথমে বলা হয়েছিল, ইউক্রেন সীমান্তে তাদের সামরিক মহড়ার জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। তবে সেখানে যাওয়ার পর সরাসরি তাদের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের ময়দানে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে।কমিটির ডেপুটি চেয়ারম্যান আন্দ্রেই কুরোচকিনের বলেছেন, গোটা রাশিয়া থেকে অসংখ্য মায়ের ফোন পাচ্ছি আমরা। তারা ক্রমাগত কাদছেন। তাদের ছেলেরা বেচে আছে কি না, সেটি জানেন না তারা।

এদিকে বিশেষ ঐ ট্রাকের ছবি আবারও প্রকাশ্যে আসার পর রাশিয়ার বিরুদ্ধে সরব হয়েছে অন্যান্য অনেক দেশ। ব্রিটেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেন ওয়ালেশ বলেন, আমি যদি রাশিয়ার সেনা হতাম এবং জানতাম যে রাষ্ট্রনায়কদের আমার প্রতি কোনো প্রকার আস্থা নেই বলে যুদ্ধের ময়দানে আমাদের পিছনে একটি চলমান শ্মশান পাঠানো হয়েছে, তবে অবশ্যই আমি চিন্তিত হতাম।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

Back to top button