বাংলাদেশে এমন কোন পুরুষ এখনো জন্মহ হয়নি যে আমাকে কাঁপাবে!

চলতি বছর যেসব অভিনয়_শিল্পী তাদের কাজের মাধ্যমে তুমুল সাড়া ফেলেছেন তাদের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে ভার’তের বিনোদন_ভিত্তিক ওয়েব সাইট ফিল্মি’সিল্মি ডটকম। সেখানে এই অভিনয়”শিল্পীদের উল্লেখ করা হয়েছে ‘গেম_চেঞ্জিং’ তারকা হিসেবে। যে’খানে স্থান পেয়েছেন হলিউডের

এমা স্টোন, লেডি গা’গা; বলিউডের প্রি’য়াঙ্কা চোপড়া, দীপিকা পাড়ুকো’নের মতো তারকারা। সেই তালিকায়, রয়ে’ছেন বাংলাদেশের অভিনেত্রী আজমেরি হক বাঁধনও। ওই মন্তব্য নি’য়েই সম্প্রতি দেশিয় গণমাধ্যম’কে বাঁধন বলেন, মন্তব্যটি জেনে বুঝেই করেছি। পুরুষ শব্দ”টা আমি ব্যবহার করেছি পুরুষ_তান্ত্রিক সমাজে বেড়ে উঠা পুরুষদের জন্য।

এখন পুরুষতান্ত্রিক সমাজে বেড়ে উঠা পুরুষরা যদি আমার ওই কথায় ব্যক্তিগত’ভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হন বা আহত হন সে’খানে আমার কিছুই করার নেই। তাদের পক্ষে আসলেই আমাকে নেওয়া সম্ভব না। বাঁধনের মন্তব্য পুরুষ’তান্ত্রিক সমাজে পুরুষের আঘাতে আঘাতে শ’ক্ত হয়েছেন তিনি।

হয়ে উঠেছেন প্রতিবাদী। তবে তার জীবন এগিয়ে নেও’য়ার ক্ষেত্রে অনেক পুরুষেরও অবদান রয়েছে বলে নির্দ্বিধায় স্বী’কার করেন তিনি। ২০১০ সালে পূর্ব পরিচিত মাশরুর সিদ্দিকী সনেটকে বিয়ে করে’ন অভিনেত্রী বাঁধন। সেই বছরই জন্ম নেয় তাদের এক’মাত্র সন্তান মিশেল_আমানী_সায়রা। বিয়ের ৪ বছরের মাথায় আ’লাদা হয়ে যান তারা।

২০১৪ সালের ২৬ নভে’ম্বর আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ হয় তাদের। দীর্ঘ’দিন পর ২০১৭ সালে সেই খবর জানাজানি হয়। বিচ্ছেদের পর‌ এক’মাত্র মেয়ে সায়রা_কে নিয়ে থাকতে শুরু করেন‌ বাঁধন। সব প্রতি”কূলতা সামাল দিয়ে লড়াকু হয়ে ওঠেন। না’না ঘটনা প্রবাহের মধ্য’দিয়ে আজকের এই অবস্থানে আ’সেন বাঁধন।।

Back to top button