খুলনায় খুকু মনিকে পুড়িয়ে হত্যা মামলায় স্বামী গ্রেপ্তার

খুলনায় স্ত্রী খুকু মনিকে পুড়িয়ে হত্যা মামলায় স্বামী কামরুল ইসলাম স্বাধীনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৬ সদস্যরা। মঙ্গলবার (০১ মার্চ) র‌্যাব-৬ এর পক্ষ থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এরআগে সোমবার রাতে নগরীর সোনাডাঙ্গা আল-ফারুক মাদ্রসা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে ওই এলাকার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়- গত ১৭ ফেব্রুয়ারি খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা থানাধীন আল-ফারুক মাদ্রসা রোডে আসামী কামরুল ইসলাম স্বাধীন তার স্ত্রী খুকুমনিকে পারিবারিক কলহের জেরে মারপিট করে গায়ে কেরোসিন দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। স্থানীয় লোকজন খুকু মনিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে শেখ হাসিনা জাতীয় ইনস্টিটিউট অব বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ঢাকায় ভর্তি করে। খুকু মনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২১ ফেব্রুয়ারি মৃত্যুবরণ করেন। এ বিষয়ে খুকুমনির মা শিউলি বেগম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

চাঞ্চল্য ঘটনার বিষয়ে র‌্যাব-৬ (স্পেশাল কোম্পানি) এর একটি চৌকস আভিযানিক দল ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং আসামী গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে গোয়ান্দা তৎপরতা অব্যাহত রাখে। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) র‌্যাব-৬ (স্পেশাল কোম্পানি) খুলনার একটি চৌকস আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার আসামী স্বাধীন খুলনার সোনাডাঙ্গা এলাকায় অবস্থান করছে।

র‌্যাবের আভিযানিক দলটি রাত সোয়া ৯ টার দিকে খুলনার সোনাডাঙ্গা থানাধীন আল ফারুক মাদ্রাসা রোড এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে খুকু মনিকে পুড়িয়ে হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত পলাতক আসামী মোঃ কামরুল ইসলাম স্বাধীন ওরফে কামরুলকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেফতার স্বাধীনকে সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Back to top button