খারসন শহরের নিয়ন্ত্রণে রুশ বাহিনী, নিহত ২০০

ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের ৭ম দিনে দেশটির আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ শহর নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে রুশ সেনারা। খেরসন নিয়ন্ত্রণ নিতে গিয়ে ২০০ মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। স্থানীয় কাউন্সিলের এক সদস্যের বরাত দিয়ে এই খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি।

 ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহরটিতে প্রায় আড়াই লাখ মানুষের বসবাস। খেরসনের স্থানীয় কাউন্সিলের সদস্য জানান, এখানে ২০০ মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে, যার বেশিরভাগই বেসামরিক। শহরটির মেয়র ইগর কলিখায়েব সরকার এবং সাহায্য সংস্থাগুলোর কাছে খাদ্যপণ্য ও ওষুধ সরবরাহ নিশ্চিত করতে এবং আহতদের উদ্ধারে সাহায্যের আবেদন করেছেন।

ভারি বর্ষণের পর রাশিয়ার সেনাবহর দেখা গেছে খেরসনে। রুশ সেনাদের মঙ্গলবারই খেরসনের উত্তরাঞ্চলে অবস্থান নিয়ে রাখতে দেখা গেছে। তারা গোলাবর্ষণ ও গুলিবর্ষণ বাড়িয়েছে।গতকালই খেরসনের মেয়র ফেসবুকে হৃদয়স্পর্শী স্ট্যাটাস দিয়ে জানান, আবাসিক ভবনগুলোতে আগুন জ্বলছে। শহরের স্থাপনাগুলো পুড়ছে।

এদিকে ইউক্রেনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর জায়তোময়ারে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় বেশ কয়েকটি আবাসিক ভবন ক্ষেপনাস্ত্র হামলা হয়েছে। এতে ভবনগুলো ক্ষতিগ্রস্ত এবং আগুন ধরে যায়। কর্তৃপক্ষ বলেছে, এই হামলায় চার জন নিহত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার সকালে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে আক্রমণ চালাতে রাশিয়ান সেনাদের নির্দেশ দেন। এরপর রাশিয়ান সেনারা তিন দিক থেকে ইউক্রেনে হামলা শুরু করে। ইউক্রেনের সেনারাও প্রতিরোধের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

Back to top button