বিএনপির সমাবেশে আওয়ামী লীগের হামলা, আহত ১০

পটুয়াখালীতে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে আওয়ামী লীগের হামলা ও বিএনপির পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার বেলা এগারোটায় পৌর শহরের বনানী মোড় সংলগ্ন বিএনপি অফিসের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বিএনপির অন্তত ১০ নেতাকর্মী আহত হয়।

পরে পুলিশ ৪ রাউন্ড কাঁদানি গ্যাস নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এসময় একটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে ফেলা হয় এবং সাংবাদিকদের দুটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়।স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকালে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে পুলিশের বাঁধা অতিক্রম করে একটি মিছিল নিয়ে সরকারি কলেজের দিকে আসতে চায় বিএনপির নেতাকর্মীরা। এসময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা তাদের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে।

পরে বিএনপির নেতাকর্মীরাও পাল্টা ইটপাটকেল ছুড়লে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা তাদের উপর হামলা চালায়। এছাড়া বিভিন্ন উপজেলা থেকে আসা বিএনপির নেতাকর্মীদের উপরও বিভিন্ন সড়কের মোড়ে মোড়ে হামলা চালায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এ ঘটনায় আহত হয় জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শফিউল বাশার উজ্জল, সদর উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক জাকারিয়া, জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি মাসুদুর রহমান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি জহিরুল ইসলাম ও সদর উপজেলা যুবদলের যুগ্ন আহবায়ক শাকিলসহ অন্তত ১০ নেতাকর্মী।

পটুয়াখালী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক স্নেহাংশ সরকার কুট্রি জানান, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ করছিলাম। দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদ, এটা সারাদেশের জনগণের দাবি। কিন্তু আমাদের শান্তিপূর্ণ সমাবেশে পুলিশ বাঁধা দিয়েছে এবং আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা অতর্কিত হামলা চালিয়েছে।

আমরা এ ঘটনার প্রতিবাদ জানাই।পটুয়াখালী সদর থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

Back to top button