ভারতের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বিবেচনা করছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন

ইউক্রেন ইস্যুতে রাশিয়ার প্রতি সমর্থন দেয়ায় ভারতের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বিবেচনা করছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন। মার্কিন আইনপ্রনেতারা ও ইউরোপীয় পার্লামেন্টের সদস্যরা এবার বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছেন।

রাশিয়া থেকে আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০ কেনায় আগে থেকেই দেশটির উপরে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা ভাবছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। গত সপ্তাহে মার্কিন আইন প্রণেতাদের কাছে এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন মার্কিন প্রশাসনের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা। এ খবর দিয়েছে পাকিস্তান অবজার্ভার।

এদিকে, ব্রাসেলসে ইউরোপীয় ইউনিয়নের হেডকোয়ার্টারে ভারতকে ছাড় দেয়ার সমালোচনা করেছে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের একাধিক সদস্য। যেখানে পাকিস্তান, তুরস্ক, বাংলাদেশ ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের মতো দেশগুলো রাশিয়ার বিরুদ্ধে অবস্থান না নিয়ে সমালোচিত হয়েছে, সেখানে ভারত ছাড় পেয়ে যাচ্ছে।

অনেক মার্কিন সিনেটর ও কংগ্রেসম্যান প্রেসিডেন্ট বাইডেনকে অনুরোধ জানিয়েছেন, যাতে যে দেশই যুক্তরাষ্ট্রের আইন লঙ্ঘন করবে তাকে যেনো শাস্তি দেয়া হয়। এ জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ‘কাউন্টারিং আমেরিকাস অ্যাডভার্সারিস থ্রু স্যাংশনস অ্যাক্ট’ বা সিএএটিএসএ নামের বিশেষ আইনও রয়েছে।

যেসব দেশের ইরান, উত্তর কোরিয়া ও রাশিয়ার সঙ্গে উল্লেখযোগ্য লেনদেন আছে, এই আইনের অধীনে যুক্তরাষ্ট্র চাইলে তাদের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপ করতে পারে।

ভারতের বিরুদ্ধে সিএএটিএসএ নিষেধাজ্ঞা আরোপ নিয়ে দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক এসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি ডনাল্ড লু বলেন, ভারতের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে কিনা তা প্রেসিডেন্ট বাইডেন সিদ্ধান্ত নেবেন।

আমি নিশ্চিত করতে পারি যে, প্রশাসন সিএএটিএসএ আইন অনুসরণ করবে এবং তা পুরোপুরি প্রয়োগ করবে। এ নিয়ে ভবিষ্যতে কংগ্রেসের সঙ্গে পরামর্শ করা হবে বলেও জানান তিনি।

সুত্রঃ মানবজমিন 

Back to top button