নিজ জেলার সম্মেলনে আমন্ত্রণ পাননি ডা. মুরাদ

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে পৌর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে অতিথিদের তালিকায় আমন্ত্রণ পাননি প্রতিমন্ত্রিত্ব হারানো সংসদ সদস্য ডা. মুরাদ হাসান। গতকাল শনিবার বিকালে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দলীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ ৭ বছর পর সরিষাবাড়ী পৌর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করে সংগঠনটি। শনিবার বিকালে সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজ মাঠ প্রাঙ্গণে এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। রাত ৮টা পর্যন্ত সম্মেলনের কার্যক্রম চলে। এ সম্মেলনে জেলা-উপজেলাসহ কেন্দ্রীয় নেতাদের অতিথি করা হলেও সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান এমপিকে অতিথি করা হয়নি।

এ ব্যাপারে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বেশ কয়েকজন নেতা জানান, জেলা ও উপজেলার নেতাদের সঙ্গে নানা অজুহাতে বিরোধ সৃষ্টি করেছিলেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী। এ কারণে সরিষাবাড়ী পৌর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে তাকে অতিথি করা হয়নি।

পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিজানের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ। এতে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহম্মেদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা আলতাফ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবু জাফর আহাম্মেদ শিশা, সরিষাবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন পাঠান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাদশা, সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর-রশিদ, সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান হেলাল, পৌর মেয়র মো. মনির উদ্দিন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজু প্রমুখ।

সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ছানোয়ার হোসেন বাদশার সভাপতিত্বে দ্বিতীয় অধিবেশন শুরু হয়। সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ মো. হারুন-অর-রশিদ অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে অন্য কোনো প্রার্থী না থাকায় প্রস্তাবকারী ও সমর্থনকারীর মাধ্যমে উপাধ্যক্ষ মো. মিজানুর রহমান মিজানকে সভাপতি ও মো. মিজানুর রহমান মিজুকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আবারও মনোনীত করা হয়।

Back to top button