সিনেমা হলে দর্শক খুঁজছেন রাজ পরী!

‘মনে হচ্ছে চারিদিকে শুধু আমি’

গেল ১১ মার্চ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে চরকি প্রযোজিত ও গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত সিনেমা ‘গুণিন’। এই প্রথম চরকির কোনো কনটেন্ট ওটিটিতে মুক্তির আগে সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে, যা চরকির জন্যও এক নতুন অভিজ্ঞতা।

‘মনপুরা’-খ্যাত পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিম আবারও ‘গুণিন’-এর মাধ্যমে দর্শককে হলমুখী করছেন। মুক্তির পর থেকেই সিনেমাটির পরিচালক ও অভিনেতা-অভিনেত্রীরা হলে হলে ঘুরে দর্শকদের সাথে বসে সিনেমাটি উপভোগ করছে। শনিবারেও এর ব্যতিক্রম হয়নি।

বিকেল সাড়ে ৫টায় শ্যামলী সিনেমা হলে ও ৭টায় বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্সে ছিল দর্শকদের উপচে পড়া ভিড়। সেখানে উপস্থিত হয় পুরো ‘গুণিন’ টিম।পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিম বলেন, ‘গুণিন সারাদেশের ২০টি সিনেমা হলে চলছে। আপনারা দলে দলে হলে গিয়ে সিনেমাটা দেখুন। সিনেমাটা ভালো হলে ভালো বলেন, খারাপ হলে খারাপ বলেন।’

গুণিন সিনেমায় নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন শক্তিমান অভিনেতা আজাদ আবুল কালাম। স্টার সিনেপ্লেক্সে তিনিও ছিলেন দর্শক সারিতে। তিনি বলেন, ‘গুণিন আমার খুব কাছের একটা কাজ।

এখানে আমার চরিত্রটিকে ফুটিয়ে তোলার জন্য যে প্রয়াস ছিল, আশা করি সেটা করতে পেরেছি। আমাদের যিনি মেকআপ আর্টিস্ট ছিলেন তিনিও দুর্দান্ত কাজ করেছেন সেই লুকটা আনার জন্য। আপনারা গুণিন সিনেমা দেখলেই সেটা বুঝতে পারবেন।’

শরিফুল রাজ ও পরীমনি এক সঙ্গে এই প্রথম জুটি বেঁধেছেন ‘গুণিন’ সিনেমার মধ্যে দিয়ে। সিনেমার জুটি এখন যে বাস্তবে সংসার পেতেছেন তা কারোর অজানা নয়। শনিবার সন্ধ্যায় হলগুলোতে তারাও আলো ছড়িয়েছেন।

পরীমনি বলেন, ‘পরপর দুই সপ্তাহে আমার দুটি সিনেমা মুক্তি পেলো। মনে হচ্ছে চারিদিকে শুধু আমি। সারা শহর আমার পোস্টারে ছেয়ে গেছে। যারা গুণিন দেখে ফেলেছে তারা আমার অভিনয়ের প্রশংসা করছেন। আমি বলবো এটার পুরো কৃতিত্ব আসলে সেলিম ভাইয়ের। আপনারা হলে গিয়ে সিনেমাটা দেখুন। পরবর্তীতে হয়তো আপনার সাথে বসে গুণিন দেখবো।’

Back to top button