গ্যাস-বিদ্যুতের দাম নিয়ে সুখবর

জ্বালানি তেল-গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম নিয়ে সুখবর দিলেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। তিনি বলেছেন, আপাতত দেশে জ্বালানি তেল-গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়ছে না।

সোমবার (১৪ মার্চ) রাজধানীর বিদ্যুৎ ভবনের বিজয় হলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। দেশের বৃহত্তম কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র পায়রার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে নসরুল হামিদ বলেন, ‘বিশ্ববাজারে জ্বালানির দাম বাড়ায় প্রতিদিন ৮০ কোটি টাকা লোকসান দিচ্ছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন। এই চাপ কত দিন থাকে তা পর্যবেক্ষণ করছে সরকার। জ্বালানি ও বিদ্যুতের দাম না বাড়িয়ে কতদিন চলা যায় তা ভেবে দেখা হচ্ছে।’ জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা পাঁচ গুণ বেড়েছে।

ক্যাপটিভ ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি বিদ্যুৎসহ দেশে এখন ক্ষমতা ২২ হাজার ৫১৪ মেগাওয়াট। আরও ১৩ হাজার মেগাওয়াট ক্ষমতার বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণাধীন। আগামী ২১ মার্চ শতভাগ বিদ্যুতায়নেরও আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়া হবে। বিদ্যুতায়ন এখন ৯৯ দশমিক ৮৫ ভাগ, এটাকে শতভাগই বলা যায়।

তিনি বলেন, গ্যাস উৎপাদন বাড়াতে পার্বত্য এলাকায় গভীর কূপ খনন করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। তবে সেখান থেকে ২০ থেকে ২৫ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস পাওয়া যেতে পারে। অন্যদিকে আমাদের চাহিদা বাড়ছে হাজার হাজার ঘনফুট।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাব বাংলাদেশের ওপর এখনও পড়েনি উল্লেখ করে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘তবে যুদ্ধ দীর্ঘ হলে সংকট হতে পারে। এখনও গ্যাজপ্রম বা রূপপুরে এর কোনও প্রভাব পড়েনি।’

এফইআরবি‘র চেয়ারম্যান শামীম জাহাঙ্গীরের সভাপতিত্বে নির্বাহী পরিচালক রিশান নাসরুল্লাহর সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন- বিদ্যুৎ সচিব হাবিবুর রহমান, পিডিবির চেয়ারম্যান মাহাবুবুর রহমান, পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহম্মদ হোসেন প্রমুখ।

Back to top button