৩ লাখ টাকা হলে বাঁচবে ফুটফুটে মনিরা

হাসিতে ভরা মুখ ৮ বছর বয়সী মনিরা খাতুনের। এ বয়সী শিশুরা সারাদিন ছুটে বেড়ানো, খেলাধুলা করে দিন কাটালেও মাঝেমধ্যেই অসুস্থ হয়ে পড়ে মনিরা। পরীক্ষা-নিরীক্ষায় হার্টে ছিদ্র ধরা পড়ে শিশুটির। এর জন্য শিশুটির অপারেশন প্রয়োজন। লাগবে মোটা অঙ্কের টাকা। চিকিৎসকের এমন কথা শুনে চিন্তায় পড়েন হতদরিদ্র বাবা-মা।

টাকার অভাবে হার্টের অপারেশন করা সম্ভব হচ্ছে না। মনিরা খুলনা মহানগরীর গল্লামারীর মুহাম্মদ নগরের আরফিন শেখের মেয়ে। আরফিন শেখ ঢাকার একটি গার্মেন্টসের শ্রমিক। মনিরা মুহাম্মদনগর নুরানী তালিমুল কুরআর মাদ্রাসার ১ম শ্রেণীর ছাত্রী।

মনিরার মা তানিয়া খাতুন বলেন, ২ বছর আগে পরীক্ষা করে মনিরার হার্টে ২টি ছিদ্র ধরা পরে। তার পর থেকে সাধ্যমত চিকিৎসা করিয়েছি। কিন্তু এখন আর পারছি না। সহায় সম্বল কিছুই নেই। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হার্ট বিশেষজ্ঞ ডা. হিমেল সাহার চিকিৎসা নিচ্ছে মনিরা। ডাক্তার বলেছেন অপরারেশন করতে ৩ লাখ টাকা লাগবে।

কিন্তু কোথায় পাব এই টাকা, কে দিবে আমাকে? এই টাকা যোগাড় হলেই হয়তো শিশু মনিরার জীবন বাঁচানো সম্ভব হবে।তিনি আরও বলেন, হার্টে ২ টি ছিদ্র থাকায় দীর্ঘদিন যাবৎ অসুস্থতায় ভুগছে মনিরা। প্রায় দিনই জ্বর ও কাশিতে ভোগে। ঠিক মতো খেতে পারে না।

যার কারণে দুর্বল হয়ে যাচ্ছে। হার্ট বিশেষজ্ঞ ডা. হিমেল সাহা বলেন, মনিরার উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রায় ৩ লাখ টাকা প্রয়োজন। সমাজের বিত্তবান ও দানশীল মানুষের কাছে মনিরার অসহায় মা তানিয়া খাতুন তার এই অবুঝ সন্তানকে বাঁচানোর জন্য আর্থিক সহায়তা কামনা করেছেন।

Back to top button