গণতন্ত্রই আজ বন্দী : ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘দেশে গণতন্ত্র নেই। গণতন্ত্রকে আজ বন্দী করে রাখা হয়েছে। জাতিগতভাবে আমরা চতুর্দিক থেকে খুব বিপজ্জনক অবস্থায় পড়ে আছি। দেশে গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে একটা বড় ষড়যন্ত্র হচ্ছে। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে আমাদের যে লক্ষ্য ছিল একটা গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র নির্মাণ করা- সেটাই আজকে সবচেয়ে বিপদের সম্মুখীন হয়েছে। মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে। সারা বিশ্বে আমরা চিহ্নিত হয়েছি মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী একটা দেশ হিসেবে।’

আজ শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও দলের স্বাধীনতা সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আওয়ামী লীগের একটা কেমেস্ট্রি আছে- যেটাকে বলা হয়, রসায়ন। সেই রসায়নটা হচ্ছে- ফার্সিদের বলা হয়- ‘আনচু ডিজাবেস্ট’, মানে আমি ছাড়া আর কেউ নেই। এক মেগো অদ্বিতীয়া। এটাই সমস্যা তাদের। আর ‘বার্জিং’ মানে রাজনীতিকে নির্মূল করে দেওয়া। বিএনপিকে নির্মূল করে দেওয়ার চক্রান্ত-ষড়যন্ত্র করছে এ সরকার।’
তিনি বলেন, ‘সরকার কতগুলো প্রোগ্রামে স্বাধীনতা যুদ্ধ তথা মুক্তিযুদ্ধকে সামনে নিয়ে এসেছে। মুক্তিযুদ্ধে যারা সেদিন নেতৃত্ব দিয়েছিলেন- প্রবাসী সরকার, এমএজি ওসমানি সাহেব, বিভিন্ন সেক্টর কমান্ডার, কিংবা তাজউদ্দীন সাহেবদের (তাজউদ্দীন আহমদ) নাম আজকে কয়বার উচ্চারণ করা হয়েছে? তাহলে স্বাধীনতা যুদ্ধ কোথায় গেল?’

Back to top button